আজ সোমবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৯ ইং

বিয়ানীবাজার

দিবালোক ডেস্ক

২৯ অক্টোবর, ২০১৯ ১৩:০২

দীর্ঘ ভোগান্তির পর অবশেষে বিয়ানীবাজার-চন্দরপুর সড়কের কাজ শুরু

দীর্ঘ ভোগান্তির পর অবশেষে বিয়ানীবাজার-চন্দরপুর সড়কের বিয়ানীবাজার থেকে খলাগ্রাম অংশের কাজ শুরু হয়েছে। শনিবার সড়কের বাটাবাজার অংশে রাস্তার দু’পাশের মাটি নালা তৈরী কাজ শুরু করেছে ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান মেসার্স রাশিদুজ্জামান পিটার এন্টারপ্রাইজের শ্রমিকরা।





জানা গেছে, ‘সিডিউলে’ নির্মাণ সামগ্রি দর বাজার দরের চেয়ে কম রাখা, সড়কের নাজুক ড্রেনেজ ব্যবস্থা, শ্রমিকদের মুজুরী বৃদ্ধি এবং পরিবহন খরচের ব্যয় হিসাবসহ বিভিন্ন কারণে বার বার টেন্ডার আহবান করার পরও বিয়ানীবাজার-চন্দরপুর সড়কের সোয়া ৪ কিলোমিটার সড়ক সংস্কার কাজে কোন ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান এগিয়ে আসেনি। এতে দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে স্থানীয় এলাকাবাসীকে। পরবর্তীতে নিরুপায় হয়ে উপজেলা প্রকৌশল অফিস পুনরায় টেন্ডার আহবান করার জন্য মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন চেয়ে চিঠি প্রেরণ করে।





এদিকে, এ সড়কের বাটার বাজার (মাথিউরা বাজার) প্রায় ৫’শ মিটার অংশ সবে কাজ শুরু হয়েছে। দীর্ঘভোগান্তি পর কাজ শুরু হলেও স্থানীয় বাসিন্দাদের মধ্যে উৎকণ্ঠা কাটছে না। কাজ শুরু হয়ে শেষ না হওয়া পর্যন্ত উৎকণ্টা থাকবে বলে জানান স্থানীয় বাসিন্দা আশরাফুল হক। তিনি বলেন, রাস্তার দুই পাশে নালা করেই যেন ফেলে রাখা না হয়। তিনি দ্রুত সময়ের মধ্যে এ সড়কের কাজ সমাপ্ত করে স্থানীয় এলাকাবাসীর দুর্ভোগ লাঘবে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেন।





উপজেলা প্রকৌশল অফিস সূত্রে জানা যায়, বিয়ানীবাজার-চন্দরপুর সড়কের বিয়ানীবাজার বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনের অংশ থেকে খলাগ্রাম পর্যন্ত প্রায় চার কিলোমিটার ও ৪০০ মিটার সড়ক সংস্কার কাজের জন্য নতুন করে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান নিয়োগ দেয়া হয়েছে। প্রায় সোয়া চার কোটি টাকা ব্যয়ে সংস্কার কাজ করছে মেসার্স রাশিদুজ্জামান পিটার এন্টারপ্রাইজ।



বিয়ানীবাজার উপজেলা প্রকৌশলী মো. হাসানুজ্জামান বলেন, আগামী বছরের ডিসেম্বর মাসের মধ্যে বিয়ানীবাজার-চন্দরপুর সড়ক সংস্কার কাজ শেষ করতে ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এ ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানটি অনেক ভালো ও দ্রুত সময়ের মধ্যেই কাজ করে দিতে পারে এমনটাই শুনেছেন জানিয়ে তিনি বলেন, আবহাওয়া প্রতিকূল থাকলে নির্ধারিত সময়ের আগেই কাজ শেষ হয়ে যাবে।

শেয়ার করূন

আপনার মতামত