সর্বশেষ

  জগন্নাথপুরে শিক্ষার্থীদের বৃত্তি দিল সোনার বাংলা সমাজ কল্যাণ সংস্থা   আশারআলো ফাউন্ডশনের শিক্ষা উপকরণ বিতরণ   জুড়ীতে আদালতের নির্দেশে মৃত্যুর ১৮দিন পর ধনমিয়ার লাশ উত্তোলন   ক্যাসিনো থেকে মাসে ১০ লাখ টাকা নিতেন মেনন   ভারতের সঙ্গে চুক্তি বাতিল, আবরার সহ সকল হত্যাকাণ্ডের বিচারের দাবিতে প্রগতিশীল সংগঠনসমূহের বিক্ষোভ সমাবে   বিয়ানীবাজারে নিসচা'র সড়ক দূর্ঘটনা রোধে করণীয় শীর্ষক মতবিনিময় সভা ও অভিষেক অনুষ্ঠিত   ৫ দফা দাবীতে বিয়ানীবাজারে ফারিয়া'র মানববন্ধন   লক্ষীপুরে ছাত্রলীগে পদ পেতে লিখিত পরীক্ষা, ডোপ টেস্ট   ভারী অস্ত্রসহ ভাইরাল ছাত্রলীগ কর্মী   ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ৫০, আটক ৩   কুষ্টিয়ায় চাঁদাবাজি মামলায় ছাত্রলীগ আহ্বায়ক গ্রেফতার   বালিশকাণ্ডের দায় মন্ত্রণালয়ও এড়াতে পারে না: আইইবি সভাপতি   ঢাবির ‘ক’ ও ‘চ’ ইউনিটের ফল রোববার   শ্রীমঙ্গলে চাঁদাবাজি করতে গিয়ে চার ভুয়া সাংবাদিক আটক   মানসিকভাবে দুর্বল তরুণরাই জঙ্গিবাদে ঝুঁকছে : মনিরুল

অর্থনীতি

বাংলাদেশে গত ১০ বছরে কোটিপতি বেড়েছে চারগুণ

প্রকাশিত : ২০১৯-০৬-০৪ ১৪:০০:৫৭

রিপোর্ট : দিবালোক ডেস্ক



দেশে গত এক দশকে কোটিপতির সংখ্যা বেড়েছে প্রায় চারগুণ। এই সময়ে দেশে প্রতিবছর গড়ে ৫ হাজার ৬৪০ জন কোটিপতি হয়েছেন। বাংলাদেশ ব্যাংকের গত ডিসেম্বর পর্যন্ত আমানতকারীর হালনাগাদ হিসাব অনুযায়ী, দেশে বর্তমানে কোটিপতি আমানতকারী ৭৫ হাজার ৫৬৩ জন, ২০০৮ সালে যা ছিল ১৯ হাজার ১৬৩ জন।

হালনাগাদ হিসাব অনুযায়ী, গত ১০ বছরে কোটিপতি আমানতকারীর তালিকায় যোগ হয়েছেন প্রায় ৫৬ হাজার ৪০০ জন। ২০০৮ সালের ডিসেম্বর শেষে এ সংখ্যা ছিল ১৯ হাজার ১৬৩ জন। পাঁচ বছর পর ২০১৩ সালের ডিসেম্বর শেষে এ সংখ্যা দাঁড়ায় ৩০ হাজার ৪৭৭-এ।

এই সময়ে গড়ে প্রতিবছর কোটিপতি আমানতকারী বাড়ে ৬ হাজার ৯৫ জন। আর ২০১৮ সালের ডিসেম্বর শেষে দেশে কোটিপতি আমানতকারী হন ৭৫ হাজার ৫৬৩ জন। ২০১৩ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত ৫ বছরে কোটিপতি আমানতকারীর সংখ্যা বেড়েছে ২৫ হাজার ৯২৩। গড়ে প্রতিবছর কোটিপতি আমানতকারী বেড়েছে ৫ হাজার ১৮৪ জন।

এ বিষয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক এমএ তসলিম বলেন, শুধু আমানতের ওপর ভিত্তি করে কোটিপতির সংখ্যা বের করা সম্ভব নয়। অনেকে কালো টাকা নিশ্চয়ই ব্যাংকে রাখবেন না। তবে দেশে যে কোটিপতির সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে, এর সার্বিক চিত্র বোঝা যাচ্ছে। তিনি আরও বলেন, কোটিপতি বৃদ্ধি পাওয়া আশঙ্কাজনক।

সম্পদের সুষম বণ্টন না হওয়ায় এমনটা হতে পারে। আর কোটিপতি বৃদ্ধি হলে মূল্যস্ফীতি বৃদ্ধির ঝুঁকি থাকে। এ ছাড়া ২০০৮ সালের ডিসেম্বর শেষে দেশে কোটিপতি আমানতকারীর আমানতের পরিমাণ ছিল ৭৭ হাজার ২৩৯ কোটি টাকা। তখন মোট আমানতের ৩১ শতাংশ ছিল কোটিপতিদের।

২০১৩ সালের ডিসেম্বরে কোটিপতি আমানতকারীর আমানতের পরিমাণ বেড়ে দাঁড়ায় ২ লাখ ৪৭ হাজার ১৭৬ কোটি টাকা। আর ২০১৮ সালের ডিসেম্বর শেষে কোটিপতি আমানতকারীর অর্থের পরিমাণ বেড়ে হয় ৪ লাখ ৭৮ হাজার ৬৫৯ কোটি টাকা। ২০০১ থেকে ২০০৮ সাল পর্যন্ত দেশে কোটিপতি বেড়েছিল ১৪ হাজার ১ জন। এই সময়ে প্রতিবছর গড়ে ২ হাজার জন করে কোটিপতির সংখ্যা বাড়ে। দৈনিক আমাদের সময়

শেয়ার করুন

Print Friendly and PDF


মতামত দিন

Developed By -  IT Lab Solutions Ltd. Helpline - +88 018 4248 5222