সর্বশেষ

  উন্নয়ন, দুর্নীতি ও জিডিপি: একসঙ্গে বাড়ার রহস্য কী?   বিশ্বব্যবস্থাঃ পুঁজিবাদ যেভাবে আমাদের মেরে ফেলছে   গোলাপগঞ্জে বাস-সিএনজি অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষ।। নিহত ২ আহত ২   বিয়ানীবাজারে হোসেন হত্যা: ঘাতক সুমন গ্রেফতার   বন্ধ হচ্ছে রাজনৈতিক বিবেচনায় এপিএস নিয়োগ   বিয়ানীবাজারের মেয়ে 'নায়িকা' নিশাত নাওয়ার সালওয়া   প্রধানমন্ত্রী হিসেবে চতুর্থবারের মতো শপথ নিলেন শেখ হাসিনা   বিয়ানীবাজারের নোহা-সিএনজি’র মুখোমুখি সংঘর্ষ।। আহত ৩   ইতিহাসের মহানায়ক কমরেড মণি সিংহ   বাদ পড়লেন যাঁরা   ব্যাংকের অবলোপন করা ঋণ ৫০ হাজার কোটি টাকা   সরকার-রাষ্ট্রবিরোধী অপপ্রচার চালালেই কঠোর ব্যবস্থা   বিয়ানীবাজারে বৈধ ও অবৈধ পন্থায় অপরিকল্পিতভাবে বালু উত্তোলন   ‘স্বৈরতান্ত্রিক দেশের’ তালিকায় বাংলাদেশ   শিক্ষামন্ত্রী নাহিদকে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের অভিনন্দন

আন্তর্জাতিক

ব্রেক্সিট চুক্তি নিয়ে জানুয়ারিতে ব্রিটিশ পার্লামেন্টে ভোট

প্রকাশিত : ২০১৮-১২-১৮ ১৮:২৬:৪২

রিপোর্ট : দিবালোক ডেস্ক


ক্সিট চুক্তি নিয়ে মধ্য-জানুয়ারিতে পার্লামেন্টে ভোট হবে বলে ঘোষণা দিয়েছেন যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে। ১৪ জানুয়ারিতে শুরু হওয়া সপ্তাহেই পার্লামেন্টে এমপিরা ব্রেক্সিট চুক্তি নিয়ে ভোটাভুটি করবেন বলে তিনি জানান।

গত সপ্তাহে হওয়ার কথা থাকলেও মে তা পিছিয়ে দিয়েছিলেন। ভোটাভুটিতে ব্রেক্সিট চুক্তিটি পাস না হওয়ার আশঙ্কার কারণেই মে ওই পদক্ষেপ নেন। এতে করে ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে যুক্তরাজ্যের বেরিয়ে যাওয়ার (ব্রেক্সিট) পরিকল্পনা আরো অনিশ্চয়তায় পড়ে। এরপর মে ব্রেক্সিট চুক্তি নিয়ে আশঙ্কার জায়গাগুলো ইইউ এর কাছ থেকে আরো স্পষ্ট করে জানার চেষ্টা নেন।

এরপরই ফের ব্রেক্সিট চুক্তি নিয়ে ব্রিটিশ পার্লামেন্টে ভোটের নতুন তারিখ ঘোষণা করলেন তিনি। সেইসঙ্গে মে সবাইকে এ কথা বলেও আশ্বস্ত করেন যে, আইরিশ সীমান্ত নিয়ে যুক্তরাজ্যের যে আশঙ্কা ছিল তা ইইউ দূর করেছে। পার্লামেন্টে ভোট হওয়ার আগে ৭ জানুয়ারি থেকে এমপিরা ব্রেক্সিট চুক্তি নিয়ে বিতর্ক শুরু করবেন। এরপরই পরবর্তী সপ্তাহে ভোট হবে। কমন্সের এক বিবৃতিতে মে এ কথা বলেন।

যুক্তরাজ্যের ইইউ থেকে বেরিয়ে যাওয়ার আর মাত্র ১৪ সপ্তাহের কিছু বেশি সময় বাকি। ফলে তাড়াতাড়ি সিদ্ধান্ত নিতে হবে বলে পার্লামেন্টের অনেক সদস্যই চিন্তিত সেটি জানেন উল্লেখ করে মে বলেন, গত সপ্তাহে ইইউ সম্মেলনে গিয়ে তিনি ব্রেক্সিট চুক্তির বিতর্কিত বিষয়গুলো নিয়ে চিন্তার কোনো কারণ নেই বলে নতুন করে আশ্বাস এবং নিশ্চয়তা পেয়েছেন।

শেয়ার করুন

Print Friendly and PDF


মতামত দিন

Developed By -  IT Lab Solutions Ltd. Helpline - +88 018 4248 5222