সর্বশেষ

  দাবি মেনে নেবার আশ্বাসে অনশন ভাঙলেন শিক্ষার্থীরা...   সন্ত্রাসবিরোধী রাজু স্মারক ভাস্কর্য: কে এই রাজু?   বৃটেনের সেরা চিকিৎসক সিলেটের ডা. শাফি আহমেদ   সমাজতন্ত্রের ভবিষ্যৎ কী?   মইনুদ্দিন আহমদ জালাল সুরমা স্মরণ আয়োজন অনুষ্টিত   ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে সন্ত্রাসী হামলা, অল্পের জন্য রক্ষা পেল বাংলাদেশের খেলোয়াড়েরা   রাসায়নিক থেকেই চুড়িহাট্টার আগুন   ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ নেতা রাশেদকে হুমকির অভিযোগ   এবার ভারতের বিপক্ষে আম্পায়ারের বিতর্কিত সিদ্ধান্ত!   মাস্টার্স শেষপর্ব পরীক্ষার ফল প্রকাশ   ডাকসু পুনর্নির্বাচনের দাবিতে ছয় শিক্ষার্থীর আমরণ অনশন চলছে   জয়ী হয়েও ভোটের ফল প্রত্যাখ্যান তানহার   ৩১ মার্চের মধ্যে পুনর্নির্বাচন চান ডাকসু ভিপি নুরুল হক   অধিক কাজ করেও নায্য মজুরী পান না চা বাগানের নারী শ্রমিকরা   মাস্টারপিস বাংলাদেশ'র উদ্যোগে আন্তর্জাতিক নারী দিবস উদযাপন

জাতীয়

ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে সন্ত্রাসী হামলা, অল্পের জন্য রক্ষা পেল বাংলাদেশের খেলোয়াড়েরা

প্রকাশিত : ২০১৯-০৩-১৫ ০৮:৩৩:২৩

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে হ্যাগলি ওভাল মাঠের খুব কাছে একটি মসজিদে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে অল্পের জন্য রক্ষা পেয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের খেলোয়াড়েরা। লিটন দাস ও নাঈম হাসান ছাড়া বাংলাদেশ দলের সবাই মাঠে অনুশীলনে ছিলেন। অনুশীলন শেষে তাঁরা ওই মসজিদে জুম্মার নামাজ পড়তে যান। মসজিদে প্রবেশের মুহূর্তে স্থানীয় একজন তাঁদের মসজিদে ঢুকতে নিষেধ করেন। বলেন এখানে সন্ত্রাসী হামলা হয়েছে। খেলোয়াড়েরা তখন আতঙ্কিত হয়ে পড়েন এবং দৌড়ে হ্যাগলি ওভালে ফেরত আসেন। খেলোয়াড়দের সবাইকে মাঠের ভেতর থাকতে বলা হয়েছে।হতাহতের বিষয়ে আনুষ্ঠানিক কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি। তবে প্রত্যক্ষদর্শীদের অনেকেই বেশ কয়েকজন নিহতের আশঙ্কা করেছেন। প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে নিউজিল্যান্ডের একটি অনলাইন সংবাদমাধ্যম স্টাফ ডট কো জানিয়েছে স্থানীয় সময় বেলা ১টা ৩০ মিনিটে নামাজ শুরুর ঠিক দশ মিনিট পর একজন বন্দুকধারী সেজদায় থাকা মুসল্লিদের ওপর গুলি চালায়। এরপর জানালার কাচ ভেঙে হামলাকারী পালিয়ে যায়। হামলাকারীর হাতে অটোমেটিক রাইফেল ছিল। 
প্রসঙ্গত ক্রাইস্টচার্চের হ্যাগলি ওভাল মাঠে আগামীকাল বাংলাদেশ নিউজিল্যান্ডের তৃতীয় টেস্ট হওয়ার কথা রয়েছে।

শেয়ার করুন

Print Friendly and PDF


মতামত দিন

Developed By -  IT Lab Solutions Ltd. Helpline - +88 018 4248 5222