সর্বশেষ

  প্রতিটি স্কুলে অভিযোগ বক্স রাখার নির্দেশ হাইকোর্টের   ছাত্রলীগ নেতা বললেন, ‘সাংবাদিক পেলেই গুলি করে মারব’   কৃষক নয়, নেতারাই দিচ্ছেন ধান-চাল   বিয়ানীবাজারে ছাত্র ইউনিয়নের কাউন্সিল সম্পন্ন।। সভাপতি আবীর সম্পাদক সুজন   এইচএসসিতে বিয়ানীবাজারে পাশের হার ও ফলাফল   এইচএসসিতে বিয়ানীবাজারে পাশের হার ও ফলাফল   আনু মুহাম্মদের পরিবারের সদস্যদের গুমের হুমকি   ধর্ষণের বিচার ১৮০ দিনের মধ্যেই শেষ করার নির্দেশ   ইংল্যান্ড জিতেছে, নিউজিল্যান্ড তো হেরে গেল ভাগ্যের কাছে   বিয়ানীবাজারে সাংবাদিকের উপর হামলার প্রতিবাদে সাংবাদিকদের নিন্দা ও উদ্বেগ   বিশ্ব ক্রিকেটে নতুন চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ড   বিয়ানীবাজার সাংবাদিককে ডেকে নিয়ে জিম্মি রেস্টুরেস্টের মালিকের হামলা   স্পর্শ সোস্যাল মিডিয়া’র উপদেষ্টা ও গভর্নিংবডির কমিটি গঠন এবং বিদায়ী সংবর্ধনা   পানি বিপদসীমার ৫০ সেন্টিমিটার ওপরে, তিস্তা ব্যারাজের সব গেট খোলা   পানি বিপদসীমার ৫০ সেন্টিমিটার ওপরে, তিস্তা ব্যারাজের সব গেট খোলা

রাজনীতি

আজ ৫ জুলাই কমরেড মোহাম্মদ ফরহাদ এর জন্মবার্ষিকী

তাঁর স্মৃতির প্রতি জানাই বিপ্লবী শ্রদ্ধাঞ্জলি.........লাল সালাম

প্রকাশিত : ২০১৯-০৭-০৫ ২৩:৪৩:৪৫

রিপোর্ট : কমরেড তুহিন কান্তি


আজ ৫ জুলাই । গণতন্ত্র ও সমাজতন্ত্রের সংগ্রামের অন্যতম বলিষ্ট সংগঠক, বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতা সংগ্রামের অন্যতম রূপকার, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির সাবেক সাধারণ সম্পাদক, আজীবন সংগ্রামী বিপ্লবী জননেতা কমরেড মোহাম্মদ ফরহাদ এর জন্মবার্ষিকী । তাঁর স্মৃতির প্রতি জানাই বিপ্লবী শ্রদ্ধাঞ্জলি.........লাল সালাম ।

মহান স্বাধীনতাযুদ্ধের, গণতন্ত্র ও সমাজতন্ত্রের সংগ্রামের অন্যতম বলিষ্ট সংগঠক, বাংলাদেশের জাতীয় সংসদ এর সাবেক সদস্য, বিশিষ্ট পার্লামেন্টারিয়ান, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি’র) সাবেক সাধারণ সম্পাদক, আজীবন সংগ্রামী বিপ্লবী জননেতা কমরেড মোহাম্মদ ফরহাদ ১৯৩৮ সালের ৫ জুলাই পঞ্চগড় জেলার বোদা উপজেলার জমাদারপাড়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। মেধাবী ছাত্র মোহাম্মদ ফরহাদ মহান ভাষা আন্দোলন, ৬২’র শিক্ষা আন্দোলন, ৬৯’র গণঅভ্যুত্থান, ৭১’র মুক্তিযুদ্ধ, স্বৈরাচারবিরোধী লড়াইয়ে প্রথম সারির নেতৃত্বের ভূমিকা পালন করেন। রাজনৈতিক জীবনে তিনি বহুবার জেল, জুলুম, হুলিয়া, নির্যাতন ভোগ করেন। ১৯৫৫ সালে ১৭ বছর বয়সে মোহাম্মদ ফরহাদ কমিউনিস্ট পার্টির সদস্য পদ লাভ করেন ।

কমরেড মোহাম্মদ ফরহাদ ১৯৫২ সালে ঐতিহাসিক ভাষা আন্দোলনে অংশগ্রহণ করেন এবং ১৯৫৪ সালে প্রথম কারাবরণ করেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের ছাত্র থাকা অবস্থায় কমরেড ফরহাদ ১৯৫৯ সাল থেকে গোপনে ছাত্রদের সংগঠিত করতে থাকেন। ১৯৬২ সাল থেকে প্রায় এক বছর হুলিয়া মাথায় নিয়ে গোপনে ছাত্র-গণআন্দোলন সংগঠন ও শ্রমিক শ্রেণির পার্টির বিকাশে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। এ সময় পাকিস্তানি স্বৈরশাসক আইয়ুব খানের সামরিক শাসনের বিরুদ্ধে জঙ্গী ছাত্রআন্দোলনে ও শিক্ষাআন্দোলনে তিনি নেতৃত্ব প্রদান করেন। ১৯৬৮ সালে অনুষ্ঠিত কমিউনিস্ট পার্টির প্রথম কংগ্রেসে তিনি কেন্দ্রীয় সম্পাদকমণ্ডলীর অন্যতম সম্পাদক নির্বাচিত হন। ৬৯’র গণঅভ্যুত্থানেও কমরেড ফরহাদ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন। ১৯৭১ সালে মহান স্বাধীনতাযুদ্ধে তিনি অংশগ্রহণ করেন এবং সিপিবি-ন্যাপ-ছাত্র ইউনিয়নের যৌথ গেরিলা বাহিনীর প্রধান সংগঠক ও অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৭৩ সালে অনুষ্ঠিত কমিউনিস্ট পার্টির দ্বিতীয় কংগ্রেসে কমরেড ফরহাদ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। এরপর ক্রমান্বয়ে ১৯৮০ সালে অনুষ্ঠিত ৩য় কংগ্রেসে এবং ১৯৮৭ সালে অনুষ্ঠিত ৪র্থ কংগ্রেসেও কমরেড ফরহাদ বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন ।

১৯৮২ সালের ২৪ মার্চ এরশাদের ক্ষমতা দখলের পর সামরিক শাসনবিরোধী রাজনৈতিক ঐক্য তথা ১৫ দলীয় ঐক্যজোট গঠন, জাতীয় দাবি ৫ দফা প্রণয়ন ও যুগপৎ আন্দোলন গড়ে তোলার ক্ষেত্রে কমরেড ফরহাদ বলিষ্ঠ ও অগ্রণী ভূমিকা পালন করেন। ১৯৮৬ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি পঞ্চগড়-২ (বোদা-দেবীগঞ্জ) নির্বাচনী এলাকা থেকে জাতীয় সংসদের সদস্য নির্বাচিত হন। ৫২’র ভাষা আন্দোলন থেকে শুরু করে এদেশের সকল গণতান্ত্রিক প্রগতিশীল আন্দোলনে তিনি অগ্রণী ভূমিকা পালন করেন। ৩৫ বছরের ঘটনাবহুল রাজনৈতিক জীবনে তিনি পাকিস্তান আমলে এবং স্বাধীন বাংলাদেশে জিয়া-এরশাদের আমলে দীর্ঘ প্রায় ১৪ বছর আত্মগোপনে বা কারান্তরালে ছিলেন ।

আজীবন বিপ্লবী সংগ্রামী জননেতা, শ্রমিক-কৃষকের মুক্তির দিশারী, আমাদের মহান পথপ্রদর্শক কমরেড মোহাম্মদ ফরহাদ তাঁর কর্মমূখর সংগ্রামী জীবনের অবসান ঘটিয়ে ১৯৮৭ সালের ৯ অক্টোবর না ফেরার দেশে পাড়ি জমান ।
(মোহাম্মদ ফরহাদঃ ৫ জুলাই ১৯৩৮ -- ৯ অক্টোবর ১৯৮৭)

শেয়ার করুন

Print Friendly and PDF


মতামত দিন

Developed By -  IT Lab Solutions Ltd. Helpline - +88 018 4248 5222